মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভূমি বিষয়ক ফরম

           

 

 
 

পরিবার প্রধান/পরিবারের গ্রুপ ছবি/ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক সত্যায়িত।

 

 

 


                                   

খাস কৃষি জমি বন্দোবস্ত পাওয়ার দরখাস্ত

(১২ ই মে, ১৯৯৭ খ্রিঃ তারিখের গেজেটে প্রকাশিত নীতিমালা মোতাবেক)

 

১।   (ক) দরখাস্তকারী কোন শ্রেণীর ভূমিহীন (প্রযোজ্য ক্ষেত্র/ক্ষেত্রসমূহে চিহ্ন দিন)

১) দুঃস্থ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার

২) নদী ভাঙ্গা পরিবার

৩) সক্ষমপুত্রসহ বিধবা বা স্বামী পরিত্যাক্ত পরিবার

৪) কৃষি জমি নাই ও বাস্তুবাটিহীন পরিবার

৫) অনধিক ০.১০ একর বসতবাটি আছে কিন্তু কৃষি জমি নাই এমন কৃষি নিভর পরিবার

৬) অধিগ্রহণের ফলে ভূমিহীন হইয়া পড়িয়াছে এমন পরিবার।

 

(খ) ভূমিহীন শ্রেণীর স্বপক্ষে দাখিলকৃত কাগজপত্রঃ

 

১) যথাযথ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত মুক্তিযোদ্ধা সনদপত্র;

২) ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/পৌর চেয়ারম্যান/ওয়াড কমিশনারের সনদপত্র;

৩) অন্যান্য;

 

২। দরখাস্তকারীর পরিবার প্রধানের নাম         :         বয়স       :

 

৩। দরখাস্তকারীর পিতার নাম/স্বামীর নাম       :         জীবিত/মৃত   :

 

৪। দরখাস্তকারীর জন্মস্থান/ঠিকানা             :         গ্রাম       :

 

ইউনিয়ন     :

উপজেলা     :

জেলা       :

 

৫। পরিবার প্রধানের স্ত্রী/স্বামীর নাম           :

 

৬। দরখাস্তকারীর পরিবারে সদস্যদের নাম        :

 

ক্রমিক নং

নাম

বয়স

সম্পক

কি করেন

মন্তব্য

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

৭। দরখাস্তকারীর নিজের বসতবাটির বিবরণ                :

 

৮। নিজের বসত বাটি না থাকিলে পরিবার যেখানে বাস করে,

উহার বিবরণ(বতমান ঠিকানা)                        :

 

৯। দরখাস্তকারী অথবা তাহার পিতা/মাতা পূর্বে কোন খাস

কৃষি জমি পাইয়া থাকিলে উহার বিবরণ                   :

 

১০। খাস জমির জন্য কোন জায়গায় দরখাস্ত দাখিল

করিলে উহার বিবরণ                          :

 

১১। নদী ভাঙ্গা পরিবার হইলে কবে কোথায় কিভাবে নদী ভাঙ্গিয়াছিল

এবং সেই জায়গায় কোন দলিল দস্তাবেজ থাকিলে উহার

বিবরণ(প্রয়োজনে পৃথক কাগজ ব্যবহার করিতে হইবে)।         :

 

১২। পরিবারের কেহ শহীদ বা পংগু মুক্তিযোদ্ধা হইলে তাহার

বিস্তারিত পরিচয় ও শহীদ কিংবা পংগু হইবার বিবরণ ও প্রমাণ

(প্রয়োজনে পৃথক কাগজব্যবহার করিতে হইবে)।              :

১৩। দরখাস্তকারীর দখলে কোন খাস জমি জায়গা থাকিলে উহার

বিবরণ কবে হইতে কিভাবে দখলে আছে এবং জমির বতমান

অবস্থা কি তাহা জানাইতে হইবে। (প্রয়োজনে পৃথক কাগজ

ব্যবহার করিতে হইবে)।                            :

 

১৪। দরখাস্তকারী কোন বিশেষ খাস জমি পাইতে চাহিলে তাহার

কারণ ও বিবরণ।                                :

 

১৫। প্রার্থিত জায়গা বন্দোবস্ত দেওয়া সম্ভব না হইলে অন্য

কোন এলাকা হইতে জমি চাহেনা।                      

(ক্রমানুসারে ২/৩ টি মৌজার নাম উল্লেখ করিতে হইবে)।       :

 

১৬। দরখাস্তকারীর সম্পর্কে ভাল জানেন এমন দুই জন গন্যমান্য

লোকের নাম ও ঠিকানা।                            :

 

শপথনামা

আমি........................................ পিতা/স্বামী...................................... শপথ করিয়া বলিতেছি যে, আমার সম্পর্কে উপরোক্ত বিবরণ আমি পড়িয়াছি অথবা আমাকে পড়িয়া শুনানো হইয়াছে। প্রদত্ত বিবরণ আমার জ্ঞান ও বিশ্বাস মতে সত্য। উক্ত বিবরণের কোন অংশ, ভবিষ্যতে যে কোন সময়ে, মিথ্যা প্রমাণিত হইলে আমাকে প্রদত্ত বন্দোবস্তকৃত জমি বিনা ওজরে সরকারের বরাবরে বাজেয়াপ্ত হইবে এবং আমি বা আমার ওয়ারিশান উহার বিরুদ্ধে কোন প্রকার আইনতঃ দাবী দাওয়া করিতে পারিবে না, করিলেও কোন আদালতে গ্রহণযোগ্য হইবে না। আমি শপথপূবক আরও বলিতেছি যে, আমার এবং আমার স্ত্রীর নামে খাস জমি বন্দোবস্ত দেওয়া হইলে উহা আমরা নিজে চাষাবাদ করিব, বর্গাদার দিয়া কোনভাবে চাষ করিব না এবং হস্তান্তর করিব না। আমি দরখাস্তের সকল মম জানিয়া শুনিয়া এবং বুঝিয়া সুস্থ জ্ঞানে সই করিলাম/টিপসই দিলাম।

 

 

দরখাস্তকারীর সই/টিপসই।

 

 

সনাক্তকারীর সই/টিপসই।

দরখাস্ত ফরম পুরনকারীর নাম      :

দরখাস্ত পুরণকারীর পিতা/স্বামীর নাম:

পদবী                     :

ঠিকানা                    :

 

সংশ্লিষ্ট ভূমি রাজস্ব অফিস পূরণ করিবে

১। দরখাস্ত প্রাপ্তির তারিখ       :                         সময় :

২। প্রাপ্তির ক্রমিক নং         :

৩। প্রদত্ত রসিদের ক্রমিক নম্বর   :

 

ভূমি রাজস্ব অফিসের সহকারীর স্বাক্ষর:

 

রাজস্ব কমকতার স্বাক্ষর:

 

 


Share with :

Facebook Twitter